free web tracker
Breaking News
Home / মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা / ২০২১ সালের ৮ম-১০ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের টিসি ও বোর্ড পরিবর্তনের আবেদন গ্রহণ চলছে

২০২১ সালের ৮ম-১০ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের টিসি ও বোর্ড পরিবর্তনের আবেদন গ্রহণ চলছে

২০২১ সালে অষ্টম, নবম ও দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের স্কুল পরিবর্তন বা টিসি ও বোর্ড পরিবর্তনের আবেদন গ্রহণ শুরু করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, ঢাকা।

১ জুন থেকে এ কার্যক্রম শুরু হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত এসব শ্রেণিতে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীরা (যেসব শিক্ষার্থী পাবলিক পরীক্ষায় অংশ গ্রহণের জন্য ফরম পূরণ করেননি) স্কুল পরিবর্তন ও ছাড়পত্র গ্রহণের আবেদন করতে পারবে। ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের এক বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানা গেছে।

বোর্ড বলছে, নবম ও দশম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীর বিদ্যালয় পরিবর্তন ও ছাড়পত্র গ্রহণের আবেদন অনলাইনে করতে হবে। আর বোর্ড পরিবর্তন ও অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ছাড়পত্রের আবেদন ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে সম্পন্ন হবে।

নবম-দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের টিসির আবেদনের নিয়ম :

বিজ্ঞপ্তিতে বোর্ড বলছে, ২০২১ খ্রিষ্টাব্দে নবম ও দশম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত নিয়মিত ও অনিয়মিত শিক্ষার্থীদের (যারা পাবলিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য ফরম পূরণ করেনি) বিদ্যালয় পরিবর্তন বা ছাড়পত্র গ্রহণের জন্য অনলাইনে আবেদন করতে হবে। আবেদনের সময়সীমা ১ জুন থেকে পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত বলবৎ থাকবে।

নবম ও দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের অনলাইনে টিসি আবেদন করতে প্রথমে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইটে (www.dhakaeducationboard.gov.bd) প্রবেশ করে ই–টিসি (e-TC) বাটনে ক্লিক করে টিসি আবেদন ফরম পূরণ করতে হবে। ফরম পূরণের পর নির্দিষ্ট বাটনে ক্লিক করে (Submit your Application) তা সাবমিট করতে হবে। আবেদন সাবমিট হওয়ার পর শিক্ষার্থীর দেওয়া মোবাইল নম্বরে একটি গোপনীয় কোডসহ (Security code) এসএমএস যাবে এবং এই কোড (Security code) দিয়ে শিক্ষার্থী পরবর্তী সময়ে তার আবেদনে প্রবেশ করতে পারবে।

শিক্ষার্থী অনলাইনে আবেদন সাবমিট করার পর যে ‘সোনালী সেবা’ স্লিপ পাবে, সেটি প্রিন্ট নেবে এবং পরবর্তী সময়ে সোনালী ব্যাংকের যেকোনো অনলাইন শাখা থেকে সোনালী সেবার স্লিপের মাধ্যমে টিসি ফি বাবদ ৭০০ টাকা জমা দেবে।

শিক্ষার্থী সঠিকভাবে আবেদন সাবমিট করলে অধ্যয়নরত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অর্থাৎ প্রথম শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান একটি এসএমএস পাবে। তখন ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বোর্ডের ওয়েবসাইটে গিয়ে ওইএমএসের (OEMS) মাধ্যমে লগইন করে ট্রান্সফার সার্টিফিকেট (Transfer Certificate) অপশনে ক্লিক করলে টিসির আবেদন দেখতে পারবে। অতঃপর প্রতিষ্ঠান আবেদনটি অগ্রায়ণ (Forward) বা বাতিল (Reject) করবে।

প্রথম বিদ্যালয় আবেদনটি অগ্রায়ণ করার পর টিসির জন্য আবেদনকৃত বিদ্যালয় অর্থাৎ দ্বিতীয় বিদ্যালয় একইভাবে ওইএমএসের মাধ্যমে লগইন করে ট্রান্সফার সার্টিফিকেট অপশনে ক্লিক করলে আবেদন দেখতে পারবে। তারপর ওই প্রতিষ্ঠানও আবেদনটি অগ্রায়ণ বা বাতিল করবে।

টিসির জন্য আবেদনকৃত বিদ্যালয় অর্থাৎ দ্বিতীয় বিদ্যালয় টিসি আবেদন অগ্রায়ণ করলে শিক্ষার্থী একটি এসএমএস পাবে। তখন সে সোনালী সেবার মাধ্যমে টিসি ফি জমা দেবে। সোনালী সেবার স্লিপ বোর্ডে জমা দেওয়ার প্রয়োজন নেই। এটি শিক্ষার্থী সংরক্ষণ করবে।

শিক্ষার্থী তার আবেদন কোথায় কোন অবস্থায় আছে, জানার জন্য ঢাকা বোর্ডের ওয়েবসাইটে গিয়ে ই–টিসি বাটনে ক্লিক করে ট্রান্সফার সার্টিফিকেট স্ট্যাটাসে (Transfer Certificate Status) গিয়ে তার আবেদনের অবস্থান জানতে পারবে।
টিসির জন্য আবেদনকৃত বিদ্যালয় কর্তৃক আবেদন অগ্রায়ণ এবং শিক্ষার্থী কর্তৃক ফি জমা দেওয়ার পর বোর্ড কর্তৃক টিসি আবেদন অনুমোদন বিবেচনা করা হবে। টিসি আবেদন অনুমোদন করা হলে শিক্ষার্থী একটি এসএমএস পাবে। তখন বোর্ডের ওয়েবসাইট থেকে এটি প্রিন্ট নিয়ে বদলিকৃত প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হতে পারবে।

বোর্ড পরিবর্তন ও অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ছাড়পত্রের আবেদনে যেভাবে
ঢাকা বোর্ড আরও জানিয়েছে, একই সঙ্গে বোর্ড পরিবর্তন ও অষ্টম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের ছাড়পত্র প্রদানের কার্যক্রমও চলবে। তবে বোর্ড পরিবর্তন ও অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ছাড়পত্রের আবেদন অনলাইনে সম্পন্ন হবে না। ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে সম্পন্ন হবে । ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের আওতাধীন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীকে অন্য যেকোন বোর্ডের আওতাধীন প্রতিষ্ঠানে যেতে হলে ঢাকা বোর্ডের ওয়েবসাইট থেকে টিসি ফরম ডাউনলোড করে সঠিকভাবে পূরণ করে দুই বিদ্যালয়ের প্রধানের সুপারিশসহ এবং ফরমের নির্দেশনা মোতাবেক ঢাকা বোর্ডে জমা দিয়ে একটি টিএন (TN) নম্বর সংগ্রহ করতে হবে। অন্য যেকোনো শিক্ষা বোর্ড থেকে আগত শিক্ষার্থীর একইভাবে ফরম পূরণ করে টিসির মাধ্যমে ভর্তি-ইচ্ছুক বিদ্যালয়ের প্রধানের সুপারিশ এবং পূর্ববর্তী শিক্ষা বোর্ডের টিসির আদেশের কপিসহ ফরমের নির্দেশনা মোতাবেক ঢাকা বোর্ডে জমা প্রদান করে একটি টিএন নম্বর সংগ্রহ করতে হবে।

বোর্ড কর্তৃক টিসি আবেদন অনুমোদনের পর অনুমোদনের কপি বোর্ডের ওয়েব সাইট প্রকাশ করা হবে। (www.dhakaeducationboard.gov.bd) শিক্ষার্থী বোর্ডের ওয়েবসাইটে গিয়ে স্কুল অর্ডার (School Order) বাটনে ক্লিক করলে টিসির অফিস আদেশ দেখতে পারবে এবং টিএন অনুযায়ী প্রিন্ট দিয়ে বিদ্যালয়ে ভর্তি হতে পারবে।

About শিক্ষা সংবাদ

প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক, মাদ্রাসা, কারিগরি শিক্ষা বোর্ড, মেডিকেল, উন্মুক্ত, জাতীয়, ইসলামি আরবি, ডিজিটাল, টেক্সটাইল, মেরিটাইম, এভিয়েশন এন্ড এরোস্পেস, প্রকৌশল ও প্রযুক্তি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি, কৃষি ও ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয় সহ সকল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি, পরীক্ষা, ফলাফল, পুনঃনিরীক্ষণ, পুনঃপরীক্ষা ও রেজিস্ট্রেশন, রিলিজ স্লিপে আবেদন সংক্রান্ত সকল খবর।

Check Also

ঢাবি’র স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ভর্তি ও পরীক্ষার ফরম পূরণ ২১ জুন থেকে অনলাইনে

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক (সম্মান) ও স্নাতকোত্তর শ্রেণির বিভিন্ন বর্ষ ও সেমিস্টারে ভর্তি এবং পরীক্ষার ফরম …

২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের ফরম পূরণের সময় ২৩ জুন পর্যন্ত বৃদ্ধি

২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের ফরম পূরণের সময় আবারও বাড়িয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, ঢাকা। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »