সৌদি আরবে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম উদ্বোধন

0
115
বিজ্ঞাপন দেওয়ার জন্য যোগাযোগ করুন : ০১৭১৭১২৪৬৪৬

বাংলাদেশের বৈদেশিক শ্রম বাজারের মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে সৌদি আরব। তাইতো সৌদিতে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে এসএসসি ও এইচএসসি শিক্ষা চালু করা হয়েছে। শনিবার (২০ মার্চ) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম উদ্বোধন করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, সৌদিতে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রমে প্রবাসীরা নিজেদের দক্ষতা বৃদ্ধি করতে সক্ষম হবে। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ায় আমরা অনলাইন শিক্ষা ব্যবস্থায় অনেকদূর এগিয়ে গেছি। এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে আমাদের বিভিন্ন দক্ষতা অর্জন করতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বিপিএম (বার) বলেন, সৌদিতে থাকা প্রবাসীরা দীর্ঘদিন ধরে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের আওতায় শিক্ষা গ্রহণ করার ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করে। এ পরিপ্রেক্ষিতে সৌদি আরবের জন্য শিক্ষা ফি কমিয়ে দেয়া হয়েছে। যার ফলে এসএসসিতে ৩৪ জন  ও এইচএসসিতে ৭৯ জনসহ সর্বমোট ১১৩ জন শিক্ষার্থী ভর্তি হয়েছে।

রাষ্ট্রদূত জানান, খুব শীঘ্রই সৌদি আরবে স্নাতক পর্যায়ের কোর্স চালু করার পরিকল্পনা ও আমাদের রয়েছে। এছাড়া, অনলাইনে আরবি ভাষা শিক্ষা, ইংরেজি ভাষা শিক্ষা ও সৌদি আরবের জন্য বিভিন্ন কাস্টমাইজ কোর্স চালু করার পরিকল্পনাও আমাদের রয়েছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপচার্য অধ্যাপক ড. এম এ মান্নান। তিনি আশা প্রকাশ করেন সৌদি আরবে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম অত্যন্ত উপযোগী ও সার্থক হবে এবং প্রবাসী বাংলাদেশিরা এতে উপকৃত হবে। তিনি সৌদি আরবে স্নাতক পর্যায়ের কোর্স চালু করার ব্যাপারে আশাবাদ প্রকাশ করেন।

অনুষ্ঠানে জেদ্দাস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেটের দায়িত্বপ্রাপ্ত কনসাল জেনারেল এস এম আনিসুল হক ও উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ওপেন স্কুলের ডীন ড. সাবিনা ইয়াসমিন বক্তব্য প্রদান করেন। সৌদি আরবের রিয়াদ, জেদ্দা, দাম্মাম ও মদিনাস্থ বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষবৃন্দ, বোর্ড অব ডাইরেক্টর্স এর সদস্যগণ, এসএসসি ও এইচএসসি শিক্ষা কার্যক্রমে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীগণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। দূতাবাসের প্রথম সচিব (প্রেস) মোহাম্মদ ফখরুল ইসলামের উপস্থাপনায় দূতাবাসের কর্মকর্তাগন ও বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তাগণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, এর আগে ২০১৯ সালে দক্ষিণ কোরিয়া প্রবাসী বাংলাদেশি তরুণ কর্মীদের জন্য দুই বছর মেয়াদি এইচএসসি প্রোগ্রাম চালু করার মাধ্যমে বাউবি বিদেশে শিক্ষার্থী ভর্তি কার্যক্রম শুরু করে এবং পরবর্তীতে তিন বছর মেয়াদি ব্যাচেলর অব আর্টস (বিএ) শিক্ষা প্রোগ্রাম চালু করা হয়েছে। এবং ২০২০ সালের ডিসেম্বরে কাতারে বাউবি’র বহিঃবাংলাদেশ প্রােগ্রামের এসএসসি, এইচএসসি ও বিএ/বিএসএস প্রোগ্রামে শিক্ষার্থী ভর্তি কার্যক্রম শুরু করে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here