free web tracker
Breaking News
Home / সাধারণ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় / ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ, বিস্তারিত দেখুন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ, বিস্তারিত দেখুন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। আগামী ২১ মে থেকে ৫ জুন পর্যন্ত পাঁচটি ইউনিটের অধীনে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেবেন শিক্ষার্থীরা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, অনলাইনের মাধ্যমে প্রার্থীদের ভর্তির আবেদনপ্রক্রিয়া ৮ মার্চ বিকেল চারটা থেকে শুরু হবে এবং ৩১ মার্চ রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে। টাকা জমা দেওয়ার শেষ তারিখ আগামী ১ এপ্রিল রাত ১১টা ৫৯মিনিট পর্যন্ত। ভর্তি পরীক্ষা হবে ঢাকাসহ দেশের আটটি বিভাগীয় শহরে।

২০১৫ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত মাধ্যমিক বা সমমান এবং ২০২০ সালের উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের মধ্যে যাঁরা ঢাবির বিভিন্ন ইউনিটে ভর্তির জন্য নির্ধারিত শর্ত পূরণ করতে পারবেন, তাঁরাই স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। প্রার্থীরা ৮ মার্চ বিকেল চারটা থেকে ৩১ মার্চ রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত ইন্টারনেটর সুবিধাসংবলিত কম্পিউটার থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাডমিশন ওয়েবসাইটের (https://admission.eis.du.ac.bd) মাধ্যমে অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন।

‘ক’ ইউনিটের বিস্তারিত তথ্য :

বিজ্ঞান, জীববিজ্ঞান, ফার্মেসি, আর্থ অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্সেস ও ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি অনুষদ এবং সংশ্লিষ্ট ইনস্টিটিউটে বিজ্ঞান ও কৃষিবিজ্ঞান শাখার ছাত্রছাত্রীরা আবেদন করতে পারবেন। এ ইউনিটের আওতায় যেসব বিভাগ/ইনস্টিটিউটে ভর্তির জন্য আবেদন করা যাবে, তা ওয়েবসাইটে প্রদত্ত ইউনিটের ভর্তি নির্দেশিকায় বিস্তারিত উল্লেখ থাকবে।

বিজ্ঞান ও কৃষিবিজ্ঞান শাখায় উচ্চমাধ্যমিক এবং মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের বিজ্ঞান শাখায় আলিম ও IGCSE/O Level এবং IAL/GCE A Level পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মধ্যে যাঁদের মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় (৪র্থ বিষয়সহ) প্রাপ্ত জিপিএ-দ্বয়ের যোগফল ন্যূনতম ৮.৫ (মাধ্যমিক/সমমান এবং উচ্চমাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষায় আলাদাভাবে ন্যূনতম জিপিএ-৩.৫ থাকতে হবে) আছে, তাঁরা ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। বিজ্ঞান, জীববিজ্ঞান, ফার্মেসি, আর্থ অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্সেস ও ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি অনুষদে অন্তর্ভুক্ত বিভাগ/বিষয়সমূহ এবং সংশ্লিষ্ট ইনস্টিটিউটে মেধা অনুযায়ী ভর্তির জন্য নির্বাচিত প্রার্থীদের ভর্তি-ইচ্ছুক বিষয়ে অথবা ওই বিষয়ের সঙ্গে সম্বন্ধযুক্ত অনুমোদিত বিষয়ে উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় সর্বনিম্ন গ্রেড/গ্রেড পয়েন্ট প্রাপ্তির শর্তাবলি ওয়েবসাইটে প্রদত্ত ভর্তি-নির্দেশিকায় বিস্তারিত উল্লেখ থাকবে।

‘খ’ ইউনিটের বিস্তারিত তথ্য :

কলা, সামাজিক বিজ্ঞান ও আইন অনুষদের সব বিভাগ এবং আর্থ অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্সেস অনুষদের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগ, জীববিজ্ঞান অনুষদের মনোবিজ্ঞান বিভাগ, সমাজকল্যাণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের সমাজকল্যাণ, শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের শিক্ষা, (বিএড সম্মান), আধুনিক ভাষা ইনস্টিটিউটের ইংরেজিসহ বিভিন্ন বিদেশি ভাষায় সম্মান কোর্স এবং স্বাস্থ্য অর্থনীতি ইনস্টিটিউটের স্বাস্থ্য অর্থনীতি, ইনস্টিটিউট অব ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড ভালনারেবিলিটি স্টাডিজের ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড ভালনারেবিলিটি স্টাডিজ বিষয়।

মানবিক শাখার ছাত্রছাত্রী এবং IGCSE/O Level এবং IAL/GCE A Level বা সমতুল্য পরীক্ষায় যাঁদের কমপক্ষে দুটি মানবিক শাখার বিষয় আছে, তাঁরা আবেদন করতে পারবেন। এ ইউনিটের আওতায় যেসব বিভাগ/ইনস্টিটিউটে ভর্তির জন্য আবেদন করা যাবে, তা ওয়েবসাইটে প্রদত্ত ইউনিটের ভর্তি–নির্দেশিকায় বিস্তারিত উল্লেখ থাকবে।

মানবিক শাখায় উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ছাত্রছাত্রী ‘ঘ’ ইউনিটের (Transfer Unit) মাধ্যমে এই ইউনিটের বিভাগগুলোয় ভর্তি হতে পারবেন না।

মানবিক শাখায় উচ্চমাধ্যমিক এবং মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের মানবিক শাখার আলিম পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মধ্যে যাঁদের মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় (৪র্থ বিষয়সহ) প্রাপ্ত জিপিএ-দ্বয়ের যোগফল ন্যূনতম ৮.০ (মাধ্যমিক/সমমান এবং উচ্চমাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষায় আলাদাভাবে ন্যূনতম জিপিএ-৩.০ থাকতে হবে) আছে, তাঁরা ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় সর্বনিম্ন গ্রেড/গ্রেড পয়েন্ট প্রাপ্তির শর্তাবলি এবং বিভাগীয় শর্তাবলি ওয়েবসাইটে প্রদত্ত ভর্তি নির্দেশিকায় বিস্তারিত উল্লেখ থাকবে।

‘গ’ ইউনিটের বিস্তারিত তথ্য :

ব্যবসায় শিক্ষা এবং IGCSE/O Level এবং IAL/GCE A Level বা সমতুল্য পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ছাত্রছাত্রীরা আবেদন করতে পারবেন। এ ইউনিটের আওতায় যেসব বিভাগে ভর্তির জন্য আবেদন করা যাবে, তা ওয়েবসাইটে প্রদত্ত ইউনিটের ভর্তি–নির্দেশিকায় বিস্তারিত উল্লেখ থাকবে।

ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় উচ্চমাধ্যমিক, ডিপ্লোমা ইন কমার্স ও বিজনেস ম্যানেজমেন্ট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মধ্যে যাঁদের মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় (৪র্থ বিষয়সহ) প্রাপ্ত জিপিএর যোগফল ন্যূনতম ৮.০ (মাধ্যমিক/সমমান এবং উচ্চমাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষায় আলাদাভাবে ন্যূনতম জিপিএ-৩.৫ থাকতে হবে) আছে, তাঁরা ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ে ডিপ্লোমা ইন কমার্স ও বিজনেস ম্যানেজমেন্ট শাখা থেকে আগত প্রার্থীদের অ্যাকাউন্টিং বিষয়টি অবশ্যই থাকতে হবে এবং ওই বিষয়ে ন্যূনতম ‘বি’ গ্রেড (গ্রেড পয়েন্ট ৩.০) হতে হবে। ইউনিট কর্তৃক নির্ধারিত অন্যান্য শর্ত ওয়েবসাইটে প্রদত্ত ভর্তি–নির্দেশিকায় বিস্তারিত উল্লেখ থাকবে।

‘গ’ ইউনিটভুক্ত প্রার্থীরা কেবল বিজনেস স্টাডিজ অনুষদভুক্ত বিভাগগুলোর আসনে ভর্তি হতে পারবেন। তাঁদের ‘ক’, ‘খ’ ও ‘ঘ’ ইউনিটভুক্ত বিভাগগুলোয় ‘গ’ ইউনিটের পরীক্ষার মাধ্যমে ভর্তির কোনো সুযোগ থাকবে না। তবে কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের বিভাগগুলোয় প্রার্থীদের ‘ঘ’ ইউনিটের মাধ্যমে ভর্তি পরীক্ষা দিতে হবে।

‘ঘ’ ইউনিট: বদলি ইউনিটের বিস্তারিত তথ্য :

মানবিক/বিজ্ঞান/ব্যবসায় শিক্ষা/ IGCSE/O Level এবং IAL/GCE A Level বা সমতুল্য শাখার ছাত্রছাত্রীরা আবেদন করতে পারবেন। এ ইউনিটের আওতায় যেসব বিভাগ/ইনস্টিটিউটে ভর্তির জন্য আবেদন করা যাবে, তা ওয়েবসাইটে প্রদত্ত ইউনিটের ভর্তি-নির্দেশিকায় বিস্তারিত উল্লেখ থাকবে। মানবিক শাখার মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক এবং মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের মানবিক শাখায় আলিম পরীক্ষায় উত্তীর্ণ যেসব প্রার্থীর মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় (৪র্থ বিষয়সহ) প্রাপ্ত জিপিএর যোগফল ন্যূনতম ৮.০ (মাধ্যমিক/সমমান এবং উচ্চমাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষায় আলাদাভাবে ন্যূনতম ৩.০ থাকতে হবে) আছে, তাঁরা ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন।

বিজ্ঞান, কৃষিবিজ্ঞান, গার্হস্থ্য অর্থনীতি এবং মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের বিজ্ঞান শাখা থেকে আগত যেসব প্রার্থীর মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় (৪র্থ বিষয়সহ) প্রাপ্ত জিপিএর যোগফল ন্যূনতম ৮.৫ (মাধ্যমিক/সমমান এবং উচ্চমাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষায় আলাদাভাবে ন্যূনতম ৩.৫ থাকতে হবে) আছে, তাঁরা ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন।

ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় উচ্চমাধ্যমিক, ডিপ্লোমা ইন কমার্স ও বিজনেস ম্যানেজমেন্ট শাখা থেকে আগত প্রার্থীদের মধ্যে যাঁদের মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় (৪র্থ বিষয়সহ) প্রাপ্ত জিপিএর যোগফল ন্যূনতম ৮.০ (মাধ্যমিক/সমমান এবং উচ্চমাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষায় আলাদাভাবে ন্যূনতম ৩.৫ থাকতে হবে) আছে, কেবল তাঁরা ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন।

উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় কোনো বিষয়ে ‘বি’ গ্রেডের (গ্রেড পয়েন্ট–৩.০) নিচে আবেদন গ্রহণযোগ্য হবে না। এই ইউনিটের আওতায় যে বিষয়ে ভর্তি হতে ইচ্ছুক, সে বিষয়ে অথবা ওই বিষয়ের সঙ্গে সম্বন্ধযুক্ত অনুমোদিত বিষয়ে উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় সর্বনিম্ন গ্রেড/গ্রেড পয়েন্ট প্রাপ্তির শর্তাবলি এবং বিভাগীয় শর্তাবলি ওয়েবসাইটে প্রদত্ত ভর্তি–নির্দেশিকায় বিস্তারিত উল্লেখ থাকবে

‘চ’ ইউনিটের বিস্তারিত তথ্য :

‘চ’ ইউনিটের আওতায় অঙ্কন ও চিত্রায়ণ, গ্রাফিক ডিজাইন, প্রিন্টমেকিং, প্রাচ্যকলা, মৃৎশিল্প, ভাস্কর্য, কারুশিল্প ও শিল্পকলার ইতিহাস। উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষার যেকোনো শাখায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় (৪র্থ বিষয়সহ) প্রাপ্ত জিপিএর যোগফল ন্যূনতম ৭.০ (মাধ্যমিক/সমমান এবং উচ্চমাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষায় আলাদাভাবে ন্যূনতম জিপিএ-৩.০ থাকতে হবে) আছে, তাঁরা ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় সর্বনিম্ন গ্রেড/গ্রেড পয়েন্ট প্রাপ্তির শর্তাবলি এবং বিভাগীয় শর্তাবলি ওয়েবসাইটে প্রদত্ত ভর্তি–নির্দেশিকায় বিস্তারিত উল্লেখ থাকবে।

সাধারণ নিয়মাবলি (সব ইউনিটের জন্য প্রযোজ্য) :

*IGCSE/O Level এবং IAL/GCE A Level প্রার্থীর ক্ষেত্রে: ২০১৫ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত IGCSE/O Level পরীক্ষায় অন্তত পাঁচটি বিষয়ে এবং ২০২০ সালের ফল প্রকাশিত IAL/GCE A Level পরীক্ষায় অন্তত দুটি বিষয়ে উত্তীর্ণ ছাত্রছাত্রী ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। তাঁদের IGCSE/O Level এবং IAL/GCE A Level মোট সাতটি বিষয়ের মধ্যে যথাক্রমে চারটি বিষয়ে কমপক্ষে ‘বি’ গ্রেড ও তিনটি বিষয়ে কমপক্ষে ‘সি’ গ্রেড থাকতে হবে।

* সমমানের বিদেশি সার্টিফিকেট/ডিপ্লোমাধারী প্রার্থীরা সংশ্লিষ্ট ইউনিট প্রধানের অনুমতি সাপেক্ষে আবেদন করতে পারবেন। তবে সংশ্লিষ্ট অনুষদ কর্তৃক সমতা নিরূপিত হলেই কেবল তাঁরা ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন। এ ছাড়া সব প্রার্থীকে সংশ্লিষ্ট ইউনিট কর্তৃক নির্ধারিত অন্য শর্ত পূরণ করতে হবে।

কোটায় ভর্তির শর্ত :

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত শিক্ষক/কর্মকর্তা/কর্মচারীর ওয়ার্ড কোটা (কেবল ছেলে/মেয়ে/স্বামী/স্ত্রী) উপজাতি/ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী, হরিজন ও দলিত সম্প্রদায়, প্রতিবন্ধী (দৃষ্টি, বাক্, শ্রবণ ও শারীরিক) ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান/মুক্তিযোদ্ধার নাতি/নাতনিসহ, খেলোয়াড় (শুধু বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান-বিকেএসপি থেকে এইচএসসি উত্তীর্ণ ছাত্রছাত্রীদের) কোটায় ভর্তি প্রার্থীদের সংশ্লিষ্ট ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশের সাত দিনের মধ্যে ওই ইউনিটের ডিন অফিস থেকে ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশপত্র প্রদর্শনপূর্বক নির্ধারিত ফরম সংগ্রহ করতে হবে।

* ওয়ার্ড কোটার ক্ষেত্রে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্ট অফিস প্রধানের প্রত্যয়নপত্রসহ;

* উপজাতি/ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী কোটার ক্ষেত্রে নিজ নিজ উপজাতি/ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর প্রধান/জেলা প্রশাসকের সনদপত্রের সত্যায়িত ফটোকপিসহ;

* হরিজন ও দলিত সম্প্রদায় কোটার ক্ষেত্রে হরিজন ও দলিত সম্প্রদায় সংগঠনের প্রধানের সনদপত্রসহ;

* প্রতিবন্ধী কোটার (দৃষ্টি, বাক্‌, শ্রবণ ও শারীরিক) ক্ষেত্রে সঠিকতার সনদপত্রসহ;

* মুক্তিযোদ্ধার সন্তান/মুক্তিযোদ্ধার নাতি/নাতনিসহ কোটার ক্ষেত্রে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক ইস্যুকৃত সনদপত্র অথবা ১৯৯৭ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের অধীনে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক প্রতিস্বাক্ষরিত মুক্তিযোদ্ধার সনদপত্রসহ;

* খেলোয়াড় কোটায় শুধু বিকেএসপি থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষা আবেদন করতে পারবেন। এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কর্তৃক সনদপত্র প্রাপ্ত হতে হবে।

উপরিউক্ত কোটার নির্ধারিত ফরম সংগ্রহ করে তা যথাযথভাবে পূরণ করে যে কোটায় ভর্তি হতে ইচ্ছুক, তার প্রত্যয়নপত্র/সনদপত্র/ প্রমাণপত্র সংশ্লিষ্ট ইউনিটের প্রধানের অফিসে জমা দিতে হবে।

যাঁদের মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক ইস্যুকৃত সনদ নেই, কিন্তু সনদের জন্য আবেদন করেছেন, তাঁদের ক্ষেত্রে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক ইস্যুকৃত প্রত্যয়নপত্র জমা দিতে হবে। তবে ভর্তির জন্য চূড়ান্ত নির্বাচনের আগে অবশ্যই মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক ইস্যুকৃত সনদপত্র জমা দিতে হবে।

পরীক্ষার তারিখ ও সময় :

আগামী ২১ মে (শুক্রবার) বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ক’ ইউনিট, ২২ মে (শনিবার) কলা অনুষদভুক্ত ‘খ’ ইউনিট, ২৭ মে (বৃহস্পতিবার) ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদভুক্ত ‘গ’ ইউনিট, ২৮ মে (শুক্রবার) সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ঘ’ ইউনিট ও ৫ জুন (শনিবার) চারুকলা অনুষদভুক্ত ‘চ’ ইউনিটের তত্ত্বীয় পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ‘চ’ ইউনিটের (অঙ্কন) পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৯ জুন (শনিবার)। প্রতিটি ইউনিটের পরীক্ষা বেলা ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে।

পরীক্ষার সময় ও নম্বর বণ্টন :

‘ক’, ‘খ’, ‘গ’ ও ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় ৬০ নম্বরের বহুনির্বাচনী ৪৫ মিনিটে এবং ৪০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা ৪৫ মিনিটে দিতে হবে শিক্ষার্থীদের। তবে ‘চ’ ইউনিটের তত্ত্বীয় পরীক্ষার ৪০ নম্বরের জন্য ৩০ মিনিট আর লিখিত ৬০ (অঙ্কন) নম্বরের পরীক্ষার জন্য ৪৫ মিনিট সময় বরাদ্দ থাকবে।

পরীক্ষার্থীদের প্রতি নির্দেশনা :

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে সব ইউনিটের ভর্তি–ইচ্ছুক প্রার্থীদের পরীক্ষাকেন্দ্রে মোবাইল ফোন, ক্যালকুলেটর, ইলেকট্রনিক ডিভাইসসংবলিত ঘড়ি ও কলম ব্যবহার করা সম্পূর্ণ নিষেধ।

ওয়েবসাইটে প্রদত্ত ভর্তি-নির্দেশিকায় উল্লেখ নেই—ভর্তিসংক্রান্ত এমন কোনো তথ্য জানতে হলে সংশ্লিষ্ট ইউনিট কার্যালয়ে যোগাযোগ করতে হবে।

আবেদনকারীর করণীয় (সাধারণ তথ্য সব আবেদনের জন্য)

যেকোনো ইউনিটে ভর্তির আবেদন https://admission.eis.du.ac.bd ওয়েবসাইট থেকে করা যাবে। ভর্তির আবেদনের জন্য শিক্ষার্থীর উচ্চমাধ্যমিক এবং মাধ্যমিকের তথ্য, বর্তমান ঠিকানা ও মোবাইল নম্বর, পিতা/মাতার জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর (ঐচ্ছিক), শিক্ষার্থী যে বিভাগীয় শহরের কেন্দ্রে পরীক্ষা দিতে আগ্রহী, কোটা এবং স্ক্যান করা একটি ছবির প্রয়োজন পড়বে। ভর্তির আবেদন ফি তাৎক্ষণিক অনলাইনে বা চারটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকে (সোনালী, জনতা, অগ্রণী ও রূপালী) নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে জমা প্রদান করা যাবে। আবেদন ও ফি জমার বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য ওই ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে।

সমতা নিরূপণের জন্য :

এ-লেভেল/ও-লেভেল/সমমান বিদেশি পাঠক্রমে বা উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের সমতা নিরূপণের জন্য https://admission.eis.du.ac.bd ওয়েব সাইটে গিয়ে ‘সমমান আবেদন’ বা ‘Equivalence Application’ মেনুতে আবেদন করে তাৎক্ষণিকভাবে অনলাইনে নির্ধারিত ফি জমা দিতে হবে। সমতা নিরূপণের পর প্রাপ্ত ‘Equivalence ID’ ব্যবহার করে সাধারণ শিক্ষার্থীদের মতো তাঁরা একই ওয়েবসাইটে লগইন করে ভর্তি পরীক্ষার জন্য আবেদন করতে পারবেন।

About দৈনিক শিক্ষা সংবাদ

প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক, মাদ্রাসা, কারিগরি শিক্ষা বোর্ড, মেডিকেল, উন্মুক্ত, জাতীয়, ইসলামি আরবি, ডিজিটাল, টেক্সটাইল, মেরিটাইম, এভিয়েশন এন্ড এরোস্পেস, প্রকৌশল ও প্রযুক্তি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি, কৃষি ও ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয় সহ সকল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি, পরীক্ষা, ফলাফল, পুনঃনিরীক্ষণ, পুনঃপরীক্ষা ও রেজিস্ট্রেশন, রিলিজ স্লিপে আবেদন সংক্রান্ত সকল খবর।

Check Also

৩০ এপ্রিল ডেন্টালের ভর্তি পরীক্ষা হচ্ছে না, সম্ভাব্য তারিখ আগামী ২৮ মে অথবা ৪ জুন

আগামী ৩০ এপ্রিল ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের ডেন্টাল কলেজে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও করোনার কারণে …

এফসিপিএস ও এমসিপিএস পরীক্ষার অনলাইন রেজিস্ট্রেশন শুরু

জুলাই-২০২১ সেশনে অনুষ্ঠিতব্য এফসিপিএস পার্ট-১, এফসিপিএস মিড টার্ম, প্রিলিমিনারি এফসিপিএস ২য় পর্ব, এফসিপিএস ২য় পর্ব …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »